আমেরিকার গ্রীনকার্ড বাঁচাতে ছেলেকে মেনে নিয়েছেন শাকিব খান

আমেরিকার গ্রীনকার্ড বাঁচাতে অনেকটা বাধ্য হয়েই ছেলেকে মেনে নিয়েছেন বাংলা চলচ্চিত্রের কিং শাকিব খান। বুবলীর পোস্টের ২০ মিনিট পর নিজের ফেসবুকে ছেলের কথা শিকার করেন এই নায়ক।যেহেতু জন্মসূত্রে আমেরিকান নাগরিক শাহজাদ খান বীর, তাই শাকিব খান যদি ছেলেকে অস্বীকার করে, তবে তার যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হওয়াটা

অনিশ্চিত হয়ে উঠবে।জানা গেছে, বিয়ে হলেও কখনোই সংসার করেননি শাকিব-বুবলী। দুজনের যতটুকু সময় কাটানো তার পুরোটাই শুটিংয়ে। শাকিব-বুবলীর ঘনিষ্টজনরা বলছেন, ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’ সিনেমায় অভিনয়ের আগেই বুবলীকে তালাক দিয়েছেন শাকিব খান। আর তাই একসাথেও থাকেন না তারা।সন্তান জন্মের পর শাকিব-

বুবলী কেবল একটি ছবিতে অভিনয় করেছেন। শুধু তাই নয়, গত দুই বছরে যে সিনেমারই প্রস্তাব পেয়েছেন এই নায়ক, নায়িকা হিসেবে পরামর্শ দিয়েছেন অন্য কাউকে নেয়ার।২০২০ সালের ২১ মার্চ আমেরিকার একটি হাসপাতালে ছেলের জন্ম দেন শবনম বুবলী।দীর্ঘদিন গোপন রাখার পর শাকিব-অপুর সন্তান আব্রাম খান জয়ের জন্মদিনে বেবি বাম্পের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেন বুবলী।তার তিনদিন পর শুক্রবার সকালে প্রকাশ করলেন ছেলের ছবি ও নাম।

শাকিব খান-শবনম বুবলীর বিয়ের গল্পের দৈর্ঘ্যটা বড় নয়। বরং ছোট। মানে রূপালি পর্দার এই দুই তারকার বিয়ে হলেও একসাথে নেই তারা। আরও সহজ করে বললে দুজনের নাকি বিচ্ছেদ হয়ে গেছে।দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যম এমন খবর দিয়েছে। এই গল্পের শেষ কোথায়? চিত্রনাট্যে কি আরও কিছু যুক্ত হবে? উত্তর দেবে সময়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*