‘চার বছরের প্রেম, আমি জুয়েলকে বিয়ে করতে চাই: অনশনরত ইডেন ছাত্রী

বিয়ের দাবিতে রাজশাহীতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন ইডেন কলেজের এক ছাত্রী। দীর্ঘ চার বছর তাদের প্রেম চলছিলো বলে দাবি ওই কলেজ ছাত্রীর। শনিবার ফেসবুকে ভাইরাল হলে চাঞ্চল্য তৈরি করে।
প্রেমিক জুয়েল রানা রাজশাহীর তানোর উপজেলার চান্দুড়িয়া গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে। ঢাকায় একটি ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করেন তিনি। বর্তমানে তিনি ঢাকাতেই আছেন।
প্রেমিকা আয়শা আক্তার রুমি জন্মসূত্রে বরিশালের হলেও পড়াশোনার সুবাদে ঢাকায় থাকেন। ঢাকা ইডেন মহিলা কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ছাত্রী। পড়াশোনার পাশাপাশি গুলশানে আড়ংয়ের শোরুমে পার্টটাইম চাকরি করেন তিনি।

জানা যায়, গত রোববার জুয়েল রানার গ্রামের বাড়িতে আসেন ওই তরুণী। সেখানে তিন দিন অনশন করায় অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তবে চিকিৎসা শেষে বর্তমানে তিনি সুস্থ রয়েছেন। মেয়ের পরিবারে যোগাযোগ করা হলেও সাড়া মিলছে না বলে জানায় পুলিশ।

সম্প্রতি ওই ছেলে রাজশাহী নগরীর নওদাপাড়া এলাকার এক মেয়েকে বিয়ে করেছেন। বিষয়টি জানতে পেরে ওই মেয়ে ছেলের কাছে আসতে চাইলে প্রেমের সম্পর্ক অস্বীকার করেন। বাধ্য হয়ে জুয়েলের গ্রামের বাড়িতে আসেন ওই তরুণী।
ভুক্তভোগী মেয়ে জানান, বছর চারেক আগে রাজধানীর হাতিরঝিলে একটা গানের অনুষ্ঠানে তাদের পরিচয় হয়। যা এক পর্যায়ে প্রেমের সম্পর্কে গড়ায়। বিয়ের পরেও ওর (জুয়েল) সঙ্গে দেখা হয়েছে। আমি তাকে বিয়ে করতে চাই। তার আগের বউ থাকলেও আমার আপত্তি নেই।

SUGGESTED NEWS

 

রাতে পেটের আকার কমিয়ে ফেলুন সহজ একটি কৌশল
Green Coffee

PARIMATCH এর সাথে জিতুন টাকা, চাকাটি ঘুরানবিশেষ পুরস্কার জিতুন
Parimatch

কিভাবে আমি মাত্র 2 মাসে 85 কেজি থেকে 54 কেজি হয়ে গেলাম
RTBS Offer
তানোর থানার ওসি কামরুজ্জামান মিয়া বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে তানোর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়ের বাসায় যোগাযোগ করে তাদের আসতে বলা হয়। কিন্তু পরে তাদের আর সাড়া পাওয়া যায় নি।

যেহেতু পুরো ঘটনা ঢাকায় ঘটেছে, আর ছেলেও বর্তমানে ঢাকায় আছে তাই আমাদের আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার সুযোগ নেই। ওই মেয়েকে বলা হয়েছে যেন ঢাকায় যায়, কিন্তু না গেলে তো আমাদের কিছু করার নেই।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*