বাসার নিচে ৪ ঘণ্টা অপেক্ষা করেও পাওয়া গেল না বুবলীকে

বাসার নিচে ৪ ঘণ্টা অপেক্ষা করেও পাওয়া গেল না বুবলীকে
October 3, 2022 – by news online

ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়িকা শবনম বুবলীর মা হওয়া, সন্তানের পিতৃপরিচয় নিয়ে চলছিল আলোচনা-সমালোচনা। তবে আজ শুক্রবার বুবলী ও শাকিবের পক্ষ থেকে খোলাসা করা হয় সব বিষয়। সব সত্য বেরিয়ে আসার পর শুভাকাঙ্ক্ষী, ভক্ত ও গণমাধ্যমকর্মীরা ছুটে যান বুবলীর ‍উত্তরার বাসায়। উদ্দেশ্য তাকে স্বাগত জানানো, তার মুখ থেকে মাতৃত্বের অনুভূতি জানা।কিন্তু বুবলীর উত্তরার বাসার নিচে প্রায় ৪ ঘণ্টা (বিকেল ৪টা থেকে রাত ৮টা) অপেক্ষা করেও সাংবাদিকেরা দেখা পাননি বুবলীর। ব্যর্থ মনোরথে ফিরে যেতে হয়েছে সবাইকে। যদিও দারোয়ান ও

কেয়ারটেকার শুরু থেকেই বলে আসছিলেন, বুবলী বাসায় নেই। এমনকি ফোনেও পাওয়া যাচ্ছে না বুবলীকে। বুবলীর এই হঠাৎ উধাও হয়ে যাওয়া সত্যিই রহস্যজনক।গেল ক’দিনের বেবিবাম্প গুঞ্জন ছাপিয়ে শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টা নাগাদ বুবলী-শাকিব দু’জনেই নিজ নিজ ফেসবুক-পেজ দেয়ালে প্রকাশ করেছেন তাদের সন্তান শেহজাদ খান বীরের ছবি। বলেছেন, ‘ও আমাদের সন্তান’। চেয়েছেন দোয়া। মূলত এরপরই, তার উত্তরার বাসা অভিমুখে ছুটতে থাকেন গণমাধ্যমকর্মী আর ভক্তরা। উদ্দেশ্য, প্রিয় নায়িকাকে একনজর দেখা কিংবা তার মুখে

সরাসরি কিছু শোনা।কিন্তু বাসার দারোয়ান ও প্রতিবেশীদের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, সকাল থেকে বাসায় নেই বুবলী! রাতেও বাসায় ছিলেন কি না, জানেন না কেউ। তবে বেশ ক’জন প্রতিবেশী জানান, বুবলীর ছেলে শেহজাদের কথা তারা কিছুটা জানতেন। যদিও তার বাবা যে শাকিব খান- সেটা তারা ভাবেননি।এ তো গেল বাসার খবর, বুবলীকে পাওয়া যাচ্ছে না শুটিং স্পটেও। শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) জাকির হোসেন রাজুর ‘চাদর’ ছবির সেটে থাকার কথা ছিলো তার। যেমনটা ছিলেন গত কয়েকদিন। সহশিল্পী সাইমন সাদিক সংবাদমাধ্যমকে

জানালেন, ‘বুবলী আজ আমাদের ইউনিটে নেই। তবে দিনভর আমরা উনার দৃশ্যের বাইরের কাজগুলো করেছি।’এদিকে একইদিন সন্ধ্যায় ‘চাদর’ ইউনিট থেকে বুবলীর যোগ দেয়ার কথা ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ ছবির রিহার্সালে নিকেতনে। যেখানে একটি রোম্যান্টিক গানের নাচের প্র্যাকটিস কোর কথা ছিলো তার। কারণ, ১ অক্টোবর এই গানটি শুটিংয়ের মাধ্যমে শেষ হওয়ার কথা ছিলো ছবিটির কাজ। খোঁজ মিলেছে, নাচের প্র্যাকটিস বাতিল করেছেন বীরের মা বুবলী।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*