বিএনপির চেয়ে আওয়ামী লীগ এক ডিগ্রী বেশি : জিএম কাদের

সারাবাংলা বিশ্ব বিনোদন খেলা জীবনযাপন ইসলামী জীবন ভাইরাল প্রথম পৃষ্ঠা শেষ পৃষ্ঠা খবর শুভসংঘ
হোম
অনলাইন
জাতীয়
সারাবাংলা
সারাবিশ্ব
বাণিজ্য
বিনোদন
বিবিধ
চাকরি
রিপোর্টার্স ডায়েরি
খেলাধুলা
জীবনযাপন
তথ্যপ্রযুক্তি
পাঠককণ্ঠ
ইসলামী জীবন
পরবাস
ভাইরাল
কর্পোরেট কর্নার
ইসলাম ও মুসলিম বিশ্ব
বই মেলা
শুভসংঘ
কালের কণ্ঠ যুগপূর্তি
এশিয়া কাপ ২০২২
আজকের পত্রিকা
প্রথম পাতা
শেষের পাতা
খেলা
খবর
শিল্প বাণিজ্য
দেশে দেশে
প্রিয় দেশ
টুনটুন টিনটিন
ইসলামী জীবন
সম্পাদকীয়
উপ-সম্পাদকীয়
চিঠিপত্র
রংবেরং
ফিচার
A টু Z
মুঠোয় বিশ্বকাপ
শিলালিপি
লাভ ক্ষতি
ঈদ সংখ্যা ২০২২
ঈদ সংখ্যা ২০২১
ঈদ উৎসব ২০২২
ডাক্তার আছেন
নারী দিবস বিশেষ সংখ্যা
অমর একুশে বিশেষ সংখ্যা ২০২১
ঈদ আনন্দ
ঈদ বিনোদন
ই-পেপার

বিএনপির চেয়ে আওয়ামী লীগ এক ডিগ্রী বেশি : জিএম কাদের
রংপুর অফিস
৩ অক্টোবর, ২০২২ ১৭:১৮

বিএনপির চেয়ে আওয়ামী লীগ এক ডিগ্রী বেশি : জিএম কাদের

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের বলেছেন, যেজন্য আওয়ামীলীগ সরকারকে সমর্থন দেয়া হয়েছিল তার বাস্তব প্রতিফলন ঘটেনি। এ সরকার ক্ষমতায় এসে যা করছে তা বিএনপির চেয়ে এক ডিগ্রী বেশি। আমরা এর পরিবর্তন চাই। আজ সোমবার দুপুরে রংপুর সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

জিএম কাদের আরো বলেছেন, বিএনপির চেয়েও বেশি জুলুম নির্যাতন করছে আওয়ামীলীগ। সরকারের কার্যক্রমে হতাশ জাতীয় পার্টি। দেশের অবস্থা ভয়াবহ নাজুক, সরকার মেগা প্রকল্পের নামে জনগণের ওপর যে ঋণের বোঝা চাপিয়ে দিচ্ছে, দেশের মানুষ তা কতটুকু সইতে পারবে সে বিষয়ে তিনি সন্দেহ প্রকাশ করেন। অর্থনীতিতে সামনে বড় ধরনের বিপর্যয় ঘটতে পারে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।
জাতীয় পার্টিতে ভাঙনের বিষয়ে তিনি বলেন, জাতীয় পার্টিতে কোনো ভাঙ্গন নেই। দলকে শক্তিশালী করতেই কিছু সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একটা দলে থাকলে অনেকেই নির্বাচন করতে আগ্রহ প্রকাশ করে। এর মধ্য থেকে আমরা একজনকে বেছে নেই। রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বর্তমান মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফাকে মনোনয়ন দেওয়া হবে।

নির্বাচনে জোট গঠনের বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জিএম কাদের বলেন, এ বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আমাদের নির্বাচনে যাওয়া না যাওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এর ওপর আমাদের ভবিষ্যৎ রাজনীতির অস্তিত্ব নির্ভর করছে। তাই তৃণমূল থেকে দলের উচ্চ পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

বিএনপির সঙ্গে গোপন আঁতাতের বিষয়ে জিএম কাদের বলেন, আমরা গোপন কোনো আঁতাত করি না। যা কিছু হবে স্বচ্ছ। বিএনপির সঙ্গে আওয়ামী লীগের নীতিগত পার্থক্য থাকলেও তাদের কর্মকান্ড উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশের মানুষ এদের বাইরে কাউকে চায়। দেশের মানুষ সামাজিক নিরাপত্তা চায়, দেশের মানুষ খুন ধর্ষণ লুটপাট থেকে মুক্তি চায়। আমরা আমাদের নিজস্ব রাজনীতি এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। দেশের মানুষেকে সুস্থ রাজনীতি উপহার দিতে চাই।
এরশাদের শাসনামলের কথা উল্লেখ করে জিএম কাদের বলেন, এরশাদের শাসনামলে এসব ছিল না। সংখ্যালঘুরা ভালো ছিল। দেশে সুশাসন ছিল। দুর্নীতি কম ছিল। আমরা তেমন সুশাসন নিশ্চিত করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।

দেশের সার্বিক পরিস্থিতি অত্যন্ত নাজুক উল্লেখ করে জিএম কাদের বলেন, রাজনৈতিক পরিস্থিতি অস্থিতিশীল। সামনে নির্বাচন। কিন্তু আমরা এখন পর্যন্ত কিছুই বুঝতে পারছি না। নির্বাচনে সব দল অংশ নেবে কিনা, নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে কিনা তা বুঝতে পারছি না।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*