বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের জন্য ঢামেকে অস্ত্রোপচারের রোগী অন্ধকারে

আজ দুপুর থেকে বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের কারণে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ডসহ বারান্দায় অস্ত্রোপচার রোগীসহ অনেক নারী-পুরুষ রোগী অন্ধকারের মধ্যে অবস্থান করছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে জেনারেটরের মাধ্যমে হাসপাতালের কয়েকটি ভবনে বিদ্যুৎ চালু রাখা হয়েছে। পুরো মাথায় ব্যান্ডেজ করা অবস্থায় অস্ত্রোপচারের রোগী নির্মল চন্দ্রকে অন্ধকারে বিছানায় শুয়ে থাকতে দেখা গেছে।

আজ মঙ্গলবার ৪ অক্টোবর বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে হাসপাতালের পুরাতন ভবনের দোতলার ২০৩, ২০৪, ২০৫ ও ২০৬ নাম্বার ওয়ার্ডের বারান্দায় বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রোগীদের দেখা যায়। এছাড়া হাসপাতালের পুরাতন ভবনের আইসিইউ, জেনারেল ওটিসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বিদ্যুৎ সরবরাহ দেখা গেছে।

তবে হাসপাতালে বেশির ভাগ জায়গায় বিদ্যুৎ সরবরাহ দেখা গেছে। রোগী নির্মল চন্দ্র মাথায় সমস্যাজনিত কারণে হাসপাতালে ভর্তি হন। ২০০ নাম্বার ওয়ার্ডের বাইরে অতিরিক্ত বেড ২৩ নাম্বার বেডে ভর্তি আছেন তিনি। গত দুই দিন আগে তার মাথায় অস্ত্রোপচার করা হয়।

এ সময় ওই রোগীর ছেলে নিতাই চন্দ্র বলেন, দুপুর থেকে বিদ্যুৎ নেই। বাবার গত দুইদিন আগে অস্ত্রোপচার হয়েছে। হাত পাখা দিয়ে এই অন্ধকারে বসে বসে বাবাকে বাতাস করছি। এছাড়া জরুরি বিভাগে রোগীদের সব ধরনের চিকিৎসা দিতে দেখা যায় চিকিংসকদের। সেখানেও বিদ্যুৎ কোনো সমস্যা দেখা যায়নি।

এ বিষয়ে পুরাতন ভবনের তিনতলায় নিউরোসার্জারি ওটি রুমের স্টাফ ফারুক জানান, সকাল থেকে বিকেলে পর্যন্ত এই ওটিতে রোগীদের অস্ত্রোপচার করেছেন চিকিৎসকরা। এখানে বিদ্যুৎতের কোনো সমস্যা নেই।

এ সময় হাসপাতালে সহকারী পরিচালক আশরাফুল আলম বলেন, আইসিইউ, হাসপাতালের সব অস্ত্রোপচার রুম, এইচডিইউ ও গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় হাসপাতালে নিজস্ব জেনারেটর দিয়ে বিদ্যুৎ সচল রাখা হয়েছে। এটা একটানা ১২ পর্যন্ত সার্ভিস দিতে পারবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*