মিয়ানমার আকাশে যাত্রী গুলিবিদ্ধ!

বাইরে থেকে ছোড়া গুলিতে আহত হয়েছেন মাঝ আকাশে বিমানের এক যাত্রী। একেবারে অবিশ্বাস্য এমনই ঘটনা ঘটেছে মিয়ানমারে আকাশে। মিয়ানমার ন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের একটি বিমান মাটি থেকে সাড়ে তিন হাজার ফুট উচ্চতায় উড়ে যাচ্ছিল। নিচ থেকে ওই যাত্রিবাহী বিমানকে লক্ষ্য করে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠেছে। সেই গুলি বিমানের বডি ফুটো করে গিয়ে লাগল সরাসরি যাত্রীর গায়ে!

ব্রিটিশ সংবাদ সংস্থা ‘দ্য সান’-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, সাড়ে তিন হাজার ফুট উচ্চতায় উড়ে যাচ্ছিল মিয়ানমার ন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের বিমান। ওই বিমানে ৬৩ জন যাত্রী ছিলেন। বিমানটি যাচ্ছিল লাইকোভে। গন্তব্যস্থলে পৌঁছনোর আগেই বিমানকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। আর তাতেই গুলিবিদ্ধ হন এক যাত্রী।
এই ঘটনার পরই বিমানটিকে জরুরি অবতরণ করান পাইলটরা। লাইকোভে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মিয়ানমার ন্যাশনাল এয়ারলাইন্স। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে, কী ভাবে সাড়ে তিন হাজার ফুট উঁচুতে বিমানে গায়ে গুলি লাগল? কারাই বা এই গুলি চালিয়েছিল?
মিয়ানমার সরকার এই ঘটনার জন্য বিদ্রোহী গোষ্ঠীকে দায়ী করেছে। কায়া রাজ্য থেকে এই গুলি চালানো হয়েছে বলে সরকারের অভিযোগ। যদিও সরকারের এই অভিযোগকে খারিজ করেছে বিদ্রোহী গোষ্ঠী।
মিময়ানমার সরকারের মুখপাত্র মেজর জেনারেল জও মিন তুন বলেন, ‘এই ধরনের কাজ সন্ত্রাসবাদের সামিল। যে সব নাগরিক এবং প্রতিষ্ঠান দেশে শান্তি বজায় রাখতে চান, তাদের এই ঘটনার প্রতিবাদ করা উচিত।’ সূত্র : টুডে নিউজ ইউকে ডটকম, হিন্দুস্থান টাইমস।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*