সন্তান কে মেনে নিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে বিয়ে হতে যাচ্ছে শাকিব ও বুবলির!

এ যেন ইতিহাসেরই পুনরাবৃত্তি। বিয়ের ৯ বছর পর ২০১৭ সালের এপ্রিলে শীর্ষ নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে ও নিজেদের ৬ মাস বয়সী পুত্র সন্তানের দাবি নিয়ে একটি টিভি চ্যানেলের লাইভে হাজির হয়েছিলেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। তার প্রায় ৫ বছর পর শাকিব ও নিজের সন্তানের খবর নিয়ে হাজির হলেন চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী। তবে টিভি লাইভে নয়, ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে শাকিব ও বুবলী দু’জনেই গতকাল কবুল করে নিলেন সন্তানের বিষয়টি। তাদের পুত্র সন্তানের নাম শেহজাদ খান বীর। তার বয়স আড়াই বছর। সন্তানের বিষয়টি স্বীকার করলেও শাকিব-বুবলীর বিয়ে নিয়ে রহস্য রয়ে গেছে। কারণ বিয়ে কিংবা বিচ্ছেদ নিয়ে তাদের কেউই মুখ খোলেননি। ফেসবুক পোস্টেও বিয়ষটি নিয়ে কিছু জানাননি তারা। এদিকে জানা গেছে, শাকিব ও বুবলী অনেকদিন ধরেই আলাদা থাকছেন।

শুধু তাই নয়, বুবলীর সঙ্গে নতুন করে কোনো ছবি করতেও রাজী নন শাকিব। দূরত্ব তৈরি হয়েছে তাদের মাঝে। গতকাল সকালে বুবলী তার ফেসবুক পোস্টে লিখেন, আমরা চেয়েছি একটি শুভ দিনক্ষণ দেখে আমাদের সন্তানকে সবার সম্মুখে আনতে। তবে আল্লাহ যা করেন, ভালোর জন্যই করেন। সুখবরটি জানানোর জন্য আর বেশিদিন অপেক্ষা করতে হয়নি। শেহজাদ খান বীর, আমার এবং শাকিব খানের সন্তান, আমাদের ছোট্ট রাজপুত্র।

 

আমার সন্তান আমার গর্ব, আমার শক্তি। আপনাদের সবার কাছে আমাদের সন্তানের জন্য দোয়া কামনা করছি। বুবলীর পোস্টের কিছুক্ষণ পর পুত্রকে নিয়ে একই পোস্ট করেছেন শাকিব খান।

 

কিন্তু তাতে বিয়ের বিষয়ে কিছু উল্লেখ করেননি তারা। তবে, ক’দিন ধরেই শাকিব খান ও শবনম বুবলীকে নিয়ে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। রহস্য দানা বাঁধতে থাকে ২৭শে সেপ্টেম্বর বুবলীর করা একটি ফেসবুক পোস্ট থেকে। সেখানে নিজের অন্তঃসত্ত্বা সময়ের দু’টি ছবি পোস্ট করে বুবলী লেখেন, মি উইথ মাই লাইফ, থ্রো ব্যাক আমেরিকা। বিষয়টি নিয়ে বুবলী সংবাদমাধ্যমকে জানান, এ বিষয়ে তিনি বিস্তারিত পরে জানাবেন। তারপর থেকেই শাকিব ও বুবলি ভক্তসহ সবাই অপেক্ষায় ছিলেন আসল খবরটি জানার। এদিকে দুই তারকার ঘনিষ্ঠ সূত্রমতে, বুবলী যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের লং আইল্যান্ড জ্যুইশ মেডিকেল হাসপাতালে ২০২০ সালের ২১শে মার্চ পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। তার নাম রাখা হয় শেহজাদ খান বীর। সন্তান জন্মের আগে বুবলী আড়ালে চলে যান

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*