১২৭ বছরে শেরপুরের পাল বাড়ির পূজা

শেরপুর সংবাদদাতা: শেরপুরের প্রাচীন নগেন্দ্র পাল বাড়ীর পূজা এবছর পদার্পণ করলো ১২৭ বছরে। উৎসব আমেজে ঐতিহ্যবাহী এই পূজা উদযাপন করছেন, জেলার সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। আগামী বছর নগেন্দ্র পালের পঞ্চম প্রজন্ম এই পূজার আয়োজন করবে বলে জানিয়েছেন, পালপাড়া পূজা উদপাযন কমিটির সভাপতি।

শেরপুর শহর থেকে প্রায় ৩২ কিলোমিটার দূরে নালিতাবাড়ীর খালভাঙ্গায় নগেন্দ্র পালের বাড়ী। শিক্ষাগুরুর বাড়ী হিসেবে যেমন খ্যাতি রয়েছে, তেমনি দুর্গোৎসবেরও পরিচিতি রয়েছে এই বাড়ীর। ইতিহাস আর ঐতিহ্যকে ধারণ করে এবার ১২৭ বছরে পদার্পণ করলো পালবাড়ীর পূজা। ফলে বাড়তি উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে পূজা মণ্ডপ জুড়ে।

পূজা কমিটির সভাপতি জানান, মঙ্গলা সরকার প্রথম এখানে পূজা শুরু করেন। এরপর থেকে বংশপরমপরায় প্রতিবছর নানা আয়োজনে হয়ে আসছে পূজা।আয়োজনের দায়িত্ব পঞ্চম প্রজন্মের হাতে বুঝিয়ে দিতে চাইছেন তারা।

দেশে বেশীরভাগ পূজাই হয় দেবীপূরাণ মতে। তবে নগেন্দ্রবাড়ীর এই পূজাটি মৎসাপূরাণ মতে হয় বলে জানালেন, এই পুরোহিত।

সব বয়সের মানুষের আগ্রহের কেন্দ্রে থাকে নগেন্দ্রবাড়ীর পূজা। বেশ আগ্রহ নিয়ে দূর-দূরান্ত থেকে ভক্তরা আসেন এই আয়োজন উপভোগ করতে। শান্তিপূর্ণ শারদীয় দূর্গোৎসব উপহার দিতে পুলিশ সার্বক্ষনিক তৎপর রয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশের এই কর্মকর্তা।

দেশের সবচেয়ে প্রাচীন দূর্গোৎসব হয়, মৌলভীবাজারের পাঁচগাও নামক স্থানে, আর দ্বিতীয় প্রাচীন পূজাটি নালিতাবাড়ীর খালভাঙ্গায় নগেন্দ্র পালের বাড়ীতে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*