গাইবান্ধায় বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় ৬ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

ভারত পেঁয়াজ রপ্তানী বন্ধ করে দেওয়ার অজুহাতে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় গাইবান্ধা সদর ও সাদুল্লাপুর উপজেলার ৬ ব্যবসায়ীকে ২৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করে এই জরিমানা আদায় করে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের গাইবান্ধা জেলা কার্যালয়। অভিযানে সহযোগিতা করে গাইবান্ধা র‌্যাব-১৩ ক্যাম্পের সদস্যরা।

গাইবান্ধা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, দেশি পেঁয়াজ ৫৮ টাকা কেজি দরে কিনে ৮০ টাকায় ও ভারতের পেঁয়াজ ৪৬ টাকায় কিনে ৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছিলেন ব্যবসায়ীরা। আর তাই ভোক্তা অধিকার আইনে এই জরিমানা করা হয়।

প্রথমে অভিযান পরিচালনা করা হয় জেলার সবচেয়ে বড় কাঁচাবাজারের আড়ৎ পুরাতন বাজারে। এখানে চার ব্যবসায়ীকে ২৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এর মধ্যে একজনকে ১০ হাজার টাকা, দুইজনকে ৫ হাজার টাকা করে ও আরেকজনকে ৩ হাজার টাকা।

এরপর অভিযান পরিচালনা করা হয় জেলা শহরের আরেক কাঁচাবাজারের আড়ৎ নতুন বাজারে। এখানেও বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ৩ হাজার টাকা ও শেষে অভিযান পরিচালনা করা হয় সাদুল্লাপুর উপজেলা শহরের প্রধান কাঁচাবাজারের আড়ৎ সাদুল্লাপুর বাজারে। এখানে অভিযান পরিচালনা করে একজন ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয় ২ হাজার টাকা।

অভিযান পরিচালনা করেন গাইবান্ধা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আবদুস ছালাম, গাইবান্ধা র‌্যাব-১৩ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মুন্না বিশ্বাস ও জেলা বাজার অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন।

গাইবান্ধা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আবদুস ছালাম বলেন, ভারত পেঁয়াজ রপ্তানী বন্ধ করে দেওয়ার খবর শুনে গাইবান্ধার বাজারগুলোতে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম।

আর তাই গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের নির্দেশে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *