না’রীর ক’বরে ঢুকে যুব’কের কা’ণ্ড

জামালপুরে বকশীগঞ্জ উপজেলায় ক’বর খুঁড়ে নারীর ক’ঙ্কাল চুরির সময় এক যুবককে আ’টক করে পু’লিশে দিয়েছেন এলাকাবাসী। তার নাম সহি উদ্দিন (৩৫)। বুধবার সকালে উপজেলার বগারচর ইউনিয়নের উত্তর সারমারা গ্রামে এ ঘ’টনা ঘটে।

আ’টক সহি উদ্দিন একই ইউনিয়নের টালিয়াপাড়া গ্রামের সিরাজুল হকের ছেলে।স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার গভীর রাতে উত্তর সারমারা গ্রামের ক’বর’স্থান থেকে ৯ মাস আগে মারা যাওয়া এক নারীর কব’র থেকে কঙ্কা’ল চুরি করে নিয়ে যাচ্ছিলেন সহি উদ্দিন।

এ সময় সারমারা বাজারের পাহারাদার ক’ঙ্কালসহ সহি উ’দ্দিনকে আ’টক করেন। বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজন তাকে গণ’পি’টুনি দিয়ে বুধবার সকালে বকশীগঞ্জ থানা পু’লিশের হাতে সো’পর্দ করেন। বকশীগঞ্জ থানার ওসি মো. হযরত আলী জানান, ক’ঙ্কাল চু’রির অ’ভিযোগে ওই যুবককে আ’টক করে পু’লিশে দিয়েছেন এলাকাবাসী।

এ ঘটনায় মা’মলার প্রস্তুতি চলছে। আরো পড়ুন করোনায় ভারতের হিন্দু ডাক্তাররা বিষ প্রয়োগে মুসলিম রোগিদের হ’ত্যার ষ’ড়য’ন্ত্র করছে : কুয়েতি এমপির উদ্বেগ কুয়েতের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ হাইফ আল মুতাইরি এক টুইটে সেদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে অবিলম্বে ভারতের সঙ্গে সকল ধরনের স্বাস্থ্য বিষয়ক চুক্তি ও সহযোগিতা ছিন্ন করার আহ্বান জানান।

-ডিফেন্স.পিকে, জানজিবারনিকুয়েতু.ব্লগস্পট.কম ইউটিউবে গত ৮ জুনে দেয়া ভিডিওটির ভিউয়ার সংখ্যা ১ লক্ষ ৪৭ হাজার ৯৭৭ জন।কুয়েতের ওই এমপি বলেন, ভারতে মুসলিম বিদ্বেষ ব্যাপকভাবে বাড়ছে বিশেষ করে কোভিড-১৯-এর এই মহামারীর সময়ে হিন্দু ডাক্তারদের ষ’ড়য’ন্ত্র সত্যিই উ’দ্বেগজ’নক। আর আরব রোগিদের চিকিৎ’সায় হিন্দু ডাক্তার ও নার্সদের মুসলিম বি’দ্বেষী মনোভা’ব আ’শঙ্কা জাগায়, যা কুয়েত কখনই প্রত্যাশা করে না।

মুতাইরি হিন্দু ডাক্তার ও নার্সদের বিরু’দ্ধে আরব মুসলিম রোগিদের ভুল ওষুধ প্রয়োগে হ’ত্যা’র বিষয়টি তদন্তেরও আহ্বান জানান। এ প্রসঙ্গে তিনি সম্প্রতি কানপুর মেডিকেল কলেজের প্রিন্সিপাল ডা. আরতি লাল চন্দ্রানীর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও ক্লিপের কথা উল্লেখ করেন। ভিডিওটিতে ডা. আরতি লালকে মুসলমান ও তাবলিগ জামাত সদস্যদের প্রতি বিষোদগার করতে দেখা যায়।

তাকে বলতে শোনা যায়, স’ন্ত্রা’সী লোকগুলোকে আমরা ভিআইপি চিকিৎসার সাথে খাবার ও পানি সরবরাহ করছি। তাদেরজন্য আমরা আমাদের সম্পদ এবং শক্তির অপ’চয় করছি। আমরা তাদেরকে হোটেল বিল, পিপিই কিট, খাদ্য ও ওষুধ সরবরাহ করছি যা অপ’চয় ছাড়া কিছুই নয়। আমি সিএমওকে বলেছি তাদেরকে জঙ্গ’লে পাঠাতে এবং অবশ্যই তাদেরকে সেখানে ব’ন্দি করে রাখতে হবে। কিন্তু আমার বাক রু’দ্ধ করা হয়েছে।

ভিডিওটিতে তিনি আরও বলেন, ৩০ কোটি লোককে তুষ্ট করতে ১০০ কোটি লোককে মূল্য দিতে হচ্ছে। এছাড়া সমগ্র মুসলিম জাতির প্রতিও তিনি বি’ষ’মূল’ক মন্তব্য করেন। এদিকে প্রখ্যাত অ্যাকটিভিস্ট মাজাল সারিকাও এ বিষয়ে একটি টুইট করে বলেন, সাবধান! করোনা ম’হা’মারী’তে হিন্দু’ ডাক্তাররা স্বেচ্ছাসেবার নামে মুসলিম রোগীদের বি’ষ প্রয়োগে হ’ত্যা করছে যা ভ’য়ঙ্ক’র প্রবণতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *