কেরানীগঞ্জে মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার কেরাণীগঞ্জ কারা কমপ্লেক্স সীমানায় মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার (২৭ ডিসেম্বর) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারটি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

উচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও আধুনিক সুবিধা সম্বলিত এ কারাগারটিতে শুধু নারী বন্দীদের রাখা হবে। বর্তমানে সব নারী বন্দীদের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়।

গাজীপুরের কাশিমপুরে দেশের প্রথম মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার নির্মাণের পর দেশে এটি দ্বিতীয় মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার। এর নির্মাণ কাজ বেশ কয়েক মাস আগে শেষ হলেও করোনা ভাইরাসের কারণে এতদিন এটি চালু করা সম্ভব হয়নি।

কেরানীগঞ্জে একটি এলপিজি স্টেশনও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এলপিজি স্টেশন থেকে কেন্দ্রীয় কারাগারে গ্যাস সংযোগ দেওয়া হয়। ফলে এখন থেকে আর কাঠ পুড়িয়ে রান্না করতে হবে না। এলপিজি গ্যাসে রান্না হবে।

জানা গেছে, নতুন এ কারাগারটি পরিচালনা করবেন কারা অধিদপ্তরের নারী কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এখানে বিচারাধীন এবং সাজাপ্রাপ্ত নারী বন্দিদের রাখা হবে।

নারী কেন্দ্রীয় কারাগারের সার্বিক কর্মকাণ্ড তদারকি করছেন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জ্যেষ্ঠ জেল সুপার সুভাষ কুমার ঘোষ। শনিবার তিনি বলেন, কারাগারটি উদ্বোধনের পর কাশিমপুরসহ দেশের বিভিন্ন কারাগার থেকে নারী বন্দিদের কেরানীগঞ্জে নিয়ে আসা হবে। এতে নারী বন্দিদের আবাসন সংকটসহ বিভিন্ন সমস্যার সমাধান হবে।

তবে রোববার কারাগারটি উদ্বোধন হলেও আপাতত সেখানে বন্দি রাখা হবে না। করোনার প্রকোপ কমলে ক্রমান্বয়ে সেখানে বন্দিদের আনা হবে বলে জানিয়েছে কারা অধিদপ্তর সূত্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *